,

শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বেড়াতে এসে শ্লীলতাহানির শিকার তরুণী ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত কমিটিকে আশুগঞ্জ প্রেসক্লাবের অভিনন্দন আশুগঞ্জে ৩০ হাজার ৯৪৯ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের জামি সভাপতি, বিজন সম্পাদক বাফুফের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের বিরুদ্ধে আশুগঞ্জে মানববন্ধন আশুগঞ্জে জেলেদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ ময়লার স্তুপ থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার ঘটনাস্থলে না থেকেও হত্যা মামলার প্রধান আসামি হয়ে কারাগারে! কসবায় নির্মানাধীন লাইনের কাজ পরিদর্শনে রেলমন্ত্রী বজ্রপাতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে টিন ও নগদ টাকা বিতরণ

ভাই বোনের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মামা আটক

স্টাফ রিপোর্টার : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে আপন ভাই বোনের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তাদের মামা বাদল মিয়াকে (৪০) আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৬ আগস্ট) ভোরে রাজধানী ঢাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এর আগে সোমবার (২৪ আগস্ট) রাতে উপজেলার সলিমাবাদ গ্রামের প্রবাসী কামাল মিয়ার পুত্র কামরুল হাসান ও কন্যা শিফা আক্তারকে ঘরের ভেতর জবাই করে হত্যা করা হয়। ওই দিন নিহতদের মামা বাদল মিয়া ওই বাড়িতে অবস্থান করছিল। হত্যাকাণ্ডের পর সে পালিয়ে যায়।

বাঞ্ছারামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সালাউদ্দিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নিহত কামরুল ও শিফার মামা বাদল মিয়াকে ঢাকা থেকে আটক করা হয়েছে। তাকে ঢাকা থেকে নিয়ে আসা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

প্রসঙ্গত, উপজেলার সলিমাবাদ ইউনিয়নের সলিমাবাদ গ্রামের সৌদি প্রবাসী কামাল হোসেনের ছেলে কামরুল হাসান ২৪ আগস্ট বিকেল চারটা থেকে নিখোঁজ হয়। তাকে খুঁজতে পরিবারের সদস্যরা এলাকায় মাইকিংও করতে থাকেন। সন্ধ্যার পর কামরুলের বোন শিফা আক্তারও নিখোঁজ হয়। পরে রাত আটটার দিকে মা হাসিনা বেগম নিজের বাড়ির পৃথক দু’টি কক্ষের খাটের নিচ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় তাদের লাশ পরে থাকতে দেখে প্রতিবেশীদের খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে।

     এ ক্যটাগরীর আরো সংবাদ