,

শিরোনাম :
আশুগঞ্জে সুলভ মূল্যে দুধ, ডিম ও মাংস বিক্রি করছে প্রাণিসম্পদ দপ্তর হেফাজতের উপর ভর করে হামলা করেছে বিএনপি-জামাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন, হেফাজতের সকল সংবাদ বর্জনের ঘোষণা  আশুগঞ্জে হরতালে সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন শিউলি আজাদ এমপি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হরতাল : সংঘর্ষ, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ, নিহত আরো ৪ স্বেচ্ছায় রক্তদানে সকলকে উৎসাহী করে তুলতে হবে : অরবিন্দ বিশ্বাস চট্টগ্রাম বিভাগীয় জয়িতা নির্বাচিত হওয়ায় নিশাত সুলতানাকে সংবর্ধনা দিল ‘আশার আলো’ আশুগঞ্জে ১শ ১০ পাউন্ডের বিশাল কেক কেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন মেঘনা নদী দখল করে এপিসিএল এর বালু ভরাটের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন সায়েদুল হক মাস্টারের ইন্তেকাল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর নির্বাচনে ত্রিমুখি লড়াইয়ের সম্ভাবনা, কাল ভোট

স্টাফ রিপোর্টার : কাল রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনের ভোট। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) মধ্যরাতে শেষ হলো প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরসহ মোট ৭৭ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর নির্বাচনে ছয়জন মেয়র প্রার্থী থাকলেও রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও ভোটাররা জানিয়েছেন সুষ্ঠু নির্বাচন হলে নৌকা প্রতীকে আওয়ামীলীগ প্রার্থী নায়ার কবির, ধানের শীষ প্রতীকে বিএনপির প্রার্থী জহিরুল হক খোকন ও মোবাইল ফোন প্রতীকে আওয়ামীলীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়ার মধ্যে ত্রিমুখি লড়াই হবে। তবে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছেন অনেকেই। সব মিলিয়ে কে হাসবেন বিজয়ের হাসি; সেটি দেখতে অপেক্ষা করতে হবে কাল সন্ধ্যা পর্যন্ত।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ছয়জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫৬ জন, সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। এর মধ্যে মেয়র পদে আওয়ামীলীগের প্রার্থী হলেন নায়ার কবির, বিএনপির প্রার্থী জহিরুল হক খোকন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. আব্দুল মালেক, স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়া ও আব্দুল করিম।
এদের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী নায়ার কবির, বিএনপি জহিরুল হক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়া। সুষ্ঠু ভোট হলে এই তিন প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি ভোটের লড়াই জমে উঠতে পারে বলে সাধারণ ভোটার ও বিশ্লেষকরা মনে করছেন।
এদের মধ্যে আওয়ামীলীগ প্রার্থী নায়ার কবির ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার প্রথম নারী মেয়র। প্রথম মেয়াদ দায়িত্বপালনে তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ ওঠেনি। নেই তেমন কোন দুর্নীতির অভিযোগও। নায়ার কবিরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নেই। এছাড়া বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের আনুকূল্য থাকায় সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন তিনি।
অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী জহিরুল হক খোকন অত্যন্ত পরিচ্ছন্ন ও ক্লিন ইমেজের রাজনীতিবিদ। ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা এ নেতা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলেন। ফলে এলাকায় জনপ্রিয় হবার পাশাপাশি তার একটি মজবুত ভিত্তি রয়েছে। নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তার ভোটের বাক্স ভারী হতে পারে বলে বিশ্লেষকদের ধারনা।
এদিকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চেয়ে না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হক। এজন্য জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য পদ থেকে তাকে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদুল হক এলাকার জনপ্রিয় নেতা হওয়ায় পৌর এলাকায় তার একটি শক্তিশালী ভোটব্যাংক রয়েছে। তাই অনেকেই তাকে নৌকার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করছেন।
তবে সবকিছুই নির্ভর করছে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট অনুষ্ঠানের উপর। গত বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) নৌকার প্রচারণায় ককটেল বিষ্ফোণের অভিযোগে ধানের শীষ ও মোবাইল ফোনের সমর্থদের বিরুদ্ধে সদর মডেল থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। এছাড়া সাম্প্রতিককালে প্রচারণা ও মিটিং-মিছিলে নৌকা সমর্থকদের বিভিন্ন বক্তৃতা নিরপেক্ষ ভোট অনুষ্ঠানের ব্যাপারে শঙ্কা সৃষ্টি করেছে বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন। ভোট নিয়ে যে কোন সময় অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়ে সংঘর্ষ ও রক্তপাতের আশঙ্কাও করছেন তারা।
উল্লেখ্য যে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভায় ইভিএমে ভোটগ্রহণ হবে। পৌরসভার ভোটার এক লাখ ২০ হাজার ৫০৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৯ হাজার ৫৬২ জন ও নারী ভোটার ৬০ হাজার ৯৪২ জন।

     এ ক্যটাগরীর আরো সংবাদ