,

শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি আশুগঞ্জে ৩০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ, ২ জনকে জরিমানা আশুগঞ্জে আরো ২০ গৃহহীন পরিবার পেল স্বপ্নের ঠিকানা ঠিকাদারদের সমঝোতায় অর্ধেক মূল্যে বিক্রি হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদক মামলায় ১ জনের যাবজ্জীবন ডাস্টবিনে মিললো নবজাতকের লাশ কসবায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে বাবা-ছেলের মৃত্যু ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনা আক্রান্ত সংখ্যা ৪ হাজার ছাড়িয়েছে নাসিরনগরে কালোবাজারে বিক্রির জন্য বস্তা বদল করার সময় ভিজিডি ৪৪ বস্তা চাউল জব্দ ভারত থেকে আমদানি করা না হলে চালের দাম একশ টাকা কেজি হত : খাদ্যমন্ত্রী

নবীনগরে হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি

নবীনগর সংবাদদাতা : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা সদরের আহমেদ হাসপাতাল থেকে আজ রোববার দুপুরে এক শিশু চুরি হয়েছে।

জানা যায়, নবীনগর পৌর এলাকার মাঝিকাড়া গ্রামের কাউসার সরকারের (মিঠু) ৪৩ দিন বয়সের ছেলে ওমায়েদ সরকারকে ভাতার কার্ড করে দওয়ার বলে এক প্রতারক নারী গত কয়েক দিন আগে তাদের বাড়িতে গিয়ে নাম ঠিকানা লিখে নিয়ে আসে। পরিচয় দেন তিনি আহমেদ হাসপাতাল থেকে এসেছেন। আজ দুপুরে ওই প্রতারক নারী মিঠুর স্ত্রী সাবিনাকে মোবাইলে ফোন করে বলেন বাচ্চাটিকে নবীনগর আহমেদ হাসপাতালে নিয়ে আসার জন্য। ফোন পেয়ে বেলা ২টায় শিশুটিসহ সাবিনা বেগম আহমেদ হাসপাতা চলে আসেন। তখন ওই প্রতারক নারী সাবিনা বেগমকে আল্টাসোগ্রাম করতে বলেন, তখন শিশুটিকে প্রতারক নারীর কোলে দিয়ে পরীক্ষা রুমে চলে যান সাবিনা বেগম। ১০ মিনিট পর পরীক্ষা শেষে বের হয়ে এসে দেখেনে ওই নারী তার ছেলেকে নিয়ে পালিয়ে গেছে। পরে ছেলে হারিয়ে চিৎকার শুরু করেন সাবিনা। বিষয়টি পুলিশ জানতে পেরে ছুটে যায় হাসপাতালে, ঘটনার সত্যতা পেয়ে শিশুটি উদ্ধার করতে তৎপরতা শুরু করেন পুলিশ।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় কালো বোকরা ও মুখোশ পরা ৩০ থেকে ৩৫ বছরের এক মহিলা শিশু ওমায়েদকে নিয়ে দ্রুত হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যাচ্ছে। ক্যামেরার রেজুলেশন ভালো না থাকায় ওই চোর মহিলার চেহারা সঠিকভাবে চেনা যাচ্ছে না।

সন্তান উদ্ধারের আশায় থানায় বসে আহাজারি করছে সাবিনা বেগম, শিশু ওমায়েদ চুরি হয়ে গেছে এই সংবাদে সাবিনার পরিবারে নেমে এসেছে শোকের ছায়া, সাবিনার এক মেয়ে সন্তান হওয়ার পর ছয় বছর পর এই পুত্র সন্তানটি জন্ম গ্রহন করেন। সাবিনার স্বামী কাউসার সরকার পেশায় একজন শ্রমিক, থাকেন নারায়গঞ্জে।

হাসপাতাল থেকে শিশু চুরির খবরটি ছড়িয়ে পড়লে সত্যতা জানতে লোকজন ভিড় জমাচ্ছে হাসপাতালে ও থানায়।

 

 

 

 

 

নবীনগরে হাসপাতাল থেকে শিশু চুরি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নবীনগর থানার অফিসার্স ইনচার্জ আমিনুর রশিদ বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে নিশ্চিত হওয়া গেছে শিশুটি চুরি হয়েছে। এর পরপরই পুলিশ বের হয় শিশুটিকে উদ্ধার করতে। আমরা আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি শিশুটিকে উদ্ধার করতে। সম্মানিত পুলিশ সুপার নিজেও বিষয়টি তদারকি করছেন।

     এ ক্যটাগরীর আরো সংবাদ