,

শিরোনাম :
আশুগঞ্জে ৮০ জন নিবন্ধিত জেলে পরিবারের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ আশুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অক্সিজেন কনসেনটেটর দিল আতাউর রহমান মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন আশুগঞ্জে সুলভ মূল্যে দুধ, ডিম ও মাংস বিক্রি করছে প্রাণিসম্পদ দপ্তর হেফাজতের উপর ভর করে হামলা করেছে বিএনপি-জামাত ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন, হেফাজতের সকল সংবাদ বর্জনের ঘোষণা  আশুগঞ্জে হরতালে সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন শিউলি আজাদ এমপি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হরতাল : সংঘর্ষ, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ, নিহত আরো ৪ স্বেচ্ছায় রক্তদানে সকলকে উৎসাহী করে তুলতে হবে : অরবিন্দ বিশ্বাস চট্টগ্রাম বিভাগীয় জয়িতা নির্বাচিত হওয়ায় নিশাত সুলতানাকে সংবর্ধনা দিল ‘আশার আলো’ আশুগঞ্জে ১শ ১০ পাউন্ডের বিশাল কেক কেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী পালন

অবসর সুবিধার দাবিতে পরিচালক সদস্যের বাড়িতে গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক কর্মীদের অবস্থান

স্টাফ রিপোর্টার : সরকার নির্ধারিত অবসর সুবিধা চান গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক কর্মীরা। তাদের এ দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে গ্রামীণ ব্যাংকের পরিচালনা বোর্ডের সদস্য শামীমা আখতারের বাড়িতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন ব্যাংকটির সাবেক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার সোনারামপুর গ্রামে অবস্থিত হবিগঞ্জ জোনের পরিচালক সদস্য শামীমা আখতারের বাড়িতে গ্রামীণ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে এ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।
এ সময় গ্রামীণ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ সমিতির একটি প্রতিনিধি দল পরিচালক সদস্য শামীমা আক্তারের সাথে সাক্ষাত করে অবিলম্বে তাদের দাবি বাস্তবায়নের দাবি জানান। শামীমা আখতার এ বিষয়ে পরিচালনা বোর্ডের অন্যান্য সদস্যগণের সাথে আলোচনা করবেন বলে জানালেও তার বাড়িতে এত লোকের উপস্থিতির জন্য ক্ষেপে যান এবং এব্যাপারে থানায় জিডি করে রাখা হয়েছে বলে সাবেক গ্রামীন ব্যাংক কর্মীদের হুমকি দেন। এসময় মিডিয়ার সাথে কথা বলতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি।
পরে আন্দোলনকারী সাংবাদিকদের জানান, গ্রামীণ ব্যাংক একটি সরকারি বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান। সরকারের নতুন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী একজন অবসরপ্রাপ্ত কর্মী অবসরের সব টাকা এককালীন গ্রহণ করলেও নিয়মিত চিকিৎসা ভাতা, উৎসব ভাতা, বৈশাখী ভাতা এবং ১৫ বছরের অবসর জীবনের পর পুনরায় মাসিক পেনশন ভাতা পাওয়ার কথা। তবে তিন বছর আগে এই নির্দেশনা জারি হলেও গ্রামীণ ব্যাংক আজ অবধি তা বাস্তবায়ন করেনি।
তারা বলেন, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পরিশ্রমে গ্রামীণ ব্যাংক নোবেল পেয়েছে। অথচ তাদের অনেকে আজ মানবেতর জীবন যাপন করছে। সরকারি অন্যান্য বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠানে পেনশন সুবিধা কার্যকর হলেও গ্রামীণ ব্যাংকে এখনও তা চালু হয়নি। তাই দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন জোনের পরিচালনা বোর্ডের ৯জন সদস্যের বাড়িতে শান্তপূর্ণ অবস্থানের কর্মসূচি দিয়েছে গ্রামীণ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ সমিতি। অবিলম্বে দাবি বাস্তবায়ন না হলে আরো কঠোর আন্দোলনের হুমকি দিয়ে তারা জানান, অন্য প্রতিষ্ঠানের মতো দ্রুত অবসর সুবিধা কার্যকর না করলে শান্তিতে নোবেল বিজয়ী প্রতিষ্ঠানে অশান্তি শুরু হবে।

অবস্থান কর্মসূচিতে সংগঠনটির মৌলুভী বাজার জেলা সভাপতি পরিতোষ মোহন দত্ত, সাধারণ সম্পাদক মীর ইউসূফ আলী, কুমিল্লা জেলা সভাপতি সৈয়দ মহসীন, সাধারণ সম্পাদক কাফি খান, হবিগঞ্জ জেলা সভাপতি মোঃ বাহার মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী সামছুল হক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহীন আক্তার ভূঁইয়া, সিলেটের শ্রীপদ আচার্য্য ও কেন্দ্রীয় নেতা দেলোয়ার হোসেনসহ হবিগঞ্জ জোনের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, গ্রামীণ ব্যাংক থেকে অবসর নেওয়া জীবিত কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা প্রায় ১২ হাজার। এর মধ্যে হবিগঞ্জ জোনে রয়েছেন প্রায় ৩ হাজার। অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন প্রায় পাঁচ শতাধিক কর্মী।

     এ ক্যটাগরীর আরো সংবাদ